মহিলাদের ধর্ষণ করেছিল কংগ্রেসের নেতারা : অমিত শাহ

0
1

সব সংবাদ : ১৯৮৪ এর শিখ বিরোধী দাঙ্গার মূলদোষী কংগ্রেস নেতা সজ্জন কুমার সহ আরো ৫ জনকে যাবজ্জীবন কারাডন্ডে দণ্ডিত করলো দেশের সর্বোচ্চ আদালত। এই ঘটনায় বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ কংগ্রেস নেতাদের আক্রমণ করে টুইট করেন। উনি টুইটে লেখেন, ” এই ব্যাপারে কারোর কোন সন্দেহ নেই যে কংগ্রেস নেতারা ঠান্ডা মাথায় উস্কানিমূলক ভাষণ দিয়ে চারিদিকে হত্যালীলা চালিয়ে মহিলাদের ধর্ষণ করেছিল। যদিও অনেক প্রতক্ষ্যদর্শী থাকার পরেও বাকি নেতাদের কোন সাজা ঘোষণা হয়নি।”

আরও পড়ুন : রথ যাত্রার পরিবর্তে আইন অমান্য? বিজেপির নয়া কৌশল কি?

উনি আরও লেখেন, “১৯৮৪ এর দাঙ্গায় নির্যাতিত পরিবারদের সমস্ত রকম আশা শেষ হয়ে গেছিল। কারণ এর পিছনে যাদের হাত ছিল, তাঁরা রাজনৈতিক পৃষ্ঠপোষক ছিল। দিল্লীর হাইকোর্টের রায় আসার পরে এটা প্রমাণিত যে, ১৯৮৪ দাঙ্গায় যুক্ত কংগ্রেস নেতা সজ্জন কুমার এবং বাকিরা রেহাই পাবেনা ।”

আরও পড়ুন :  হায় ! যদি এটা হতো বাংলায় ?

উনি বলেন, ‘আমি প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই, কারণ উনি ২০১৫তে এস.আই.টি গঠিত করেছিল বলেই ১৯৮৪ শিখ বিরোধী দাঙ্গায় ফের তদন্ত শুরু হয়। আমি আদালতকেও ধন্যবাদ দিতে চাই, কারণ আদালতের রায়ের পরে নির্যাতিত পরিবারদের শান্তি হয়েছে।”

795Shares