কৃষি ঋণ নিয়ে কংগ্রেসকে তুলোধোনা করলেন প্রধানমন্ত্রী

modi

রানার ডেস্ক : কৃষি ঋণ প্রশ্নে শেষপর্যন্ত মুখ খুললেন প্রধানমন্ত্রী এবং প্রচন্ড আক্রমণাত্মক মেজাজে সমালোচনা করলেন কংগ্রেসের। তার অভিযোগ, কৃষিঋণ মকুবের নামে কংগ্রেস মানুষকে বোকা বানাবার সেই পুরোনো খেলাটা আবার শুরু করছে। কংগ্রেস কোনও দিনই সততার সঙ্গে রাজনীতি করেনি, কোনও দিনই কৃষকদের দেওয়া প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেনি। উদাহরন দিয়ে তিনি আজ বলেন, ২০০৯ সালে কংগ্রেস ক্ষমতায় আসার আগে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল ছয় লক্ষ কোটি টাকা তারা কৃষিঋণ মকুব করবে। বাস্তবে দেখা গেছে তারা কৃষিঋণ মকুব করেছে ৬০০০০ কোটি টাকা। এমনকি সিএজি রিপোর্টে দেখা গেছে যারা সুবিধা পেয়েছে তাদের একটা বড় অংশই কৃষক নয়।

আরও পড়ুন : শপথ নিয়েই কৃষকদের ঋণ মুকুব করলেন মুখ্যমন্ত্রী

হিমাচল প্রদেশে বিজেপি সরকারের একবছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে ভাষণ দিতে গিয়ে কংগ্রেসের কৃষিঋণ মকুবের প্রতিশ্রুতি নিয়ে মুখ খোলেন মোদী। সম্প্রতি তিন রাজ্যে ক্ষমতায় আসার আগে কৃষিঋণ মকুবের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল কংগ্রেস। সেই অনুযায়ী পদক্ষেপ করতে শুরু করেছে রাজ্য সরকারগুলি। কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের কাছেও কৃষিঋণ মকুবের দাবি জানিয়েছে কংগ্রেস। এনিয়ে রাহুল গান্ধী ক্রমাগত চাপ বাড়াচ্ছেন কেন্দ্রের ওপর। এমনকি তাঁর হুমকি এনিয়ে এমন চাপ তৈরি করবে কংগ্রেস যে প্রধানমন্ত্রীর ঘুম ছুটে যাবে। আজ পাল্টা আক্রমণে নামলেন প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুন : কংগ্রেস ও মিডিয়া মিলে মূর্খ বানালো জনগণকে। মাফ হবে না কৃষিলোন

ধর্মশালায় তাঁর ভাষণে মোদী বলেন, এর আগেও বারবার এই খেলাটা খেলেছে কংগ্রেস। পঞ্জাবে ভোটের সময় যে প্রতিশ্রুতি তারা দিয়েছিল ভোটের পর সেটা বেমালুম ভুলে গেল তারা। কর্ণাটকেও কৃষিঋণ মকুবের কার্ড খেলছিল কংগ্রেস। ভোটের পর দেখা গেল মাত্র ৮০০ জন কৃষক কৃষিঋণ মকুবের সুবিধা পেয়েছেন। তাঁর দাবি, বারবার একই খেলা খেলতে চাইছে কংগ্রেস,যেটা এখন মানুষ বুঝতে পারছে,সুতরাং এসব মিথ্যা চমক কোনও কাজে আসবে না, দাবি প্রধানমন্ত্রীর।