মমতা সরকারের সামনে নয়া চ্যালেঞ্জ, অনুব্রতর দুর্গ থেকেই শনিবার রথের যাত্রারম্ভ

0
1

আরও পরুন :

রানার প্রতিবেদন : আদালতে শুনানির সময় বিজেপি জানিয়েছিল তারা যে কোনও সময় যাত্রা শুরু করতে প্রস্তুত। সেই অনুযায়ী তারিখও জানানো হয়েছিল আদালতে। বলা হয়েছিল অনুমতি পেলেই ২২ তারিখেই যাত্রারম্ভ হবে। তিনটি রথের জন্য ২২,২৪এবং ২৬ এই তিনটি তারিখ জানানো হয়েছিল। সেই অনুযায়ী যাত্রা শুরু হবে বলে জানিয়েছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি। বৃহস্পতিবার আদালতের কাছ থেকে যাত্রার অনুমতি আসতেই উচ্ছাসে ফেটে পড়ে বিজেপি শিবির। যখন আদালতের খবর আসে তখন ৩৬ টি সাংগঠনিক জেলার সভাপতি ও পর্যবেক্ষকদের নিয়ে কলকাতার জাতীয় গ্রন্থাগারে ভাষা ভবনে বৈঠক করছিলেন দলের রাজ্য নেতৃত্ব। সেখান থেকেই উলুবেরিয়ায় সভা করতে যান দিলীপ ঘোষ। ফিরে এসে রাজ্য নেতৃত্ব এবং কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়র উপস্থিতিতে শুরু হয় রথ নিয়ে আলোচনা।

আলোচনার শুরুতেই দলের সহকারী পর্বেক্ষক যোগাযোগ করেন কেন্দ্রীয় সভাপতি অমিত শাহর সঙ্গে। তিনি জানান, আইনি বাধ্যবাধকতা না থাকলে রথ যাত্রা শুরু হোক ২৭,২৯ এবং ৩১ তারিখ। সেই সঙ্গে তিনি এও বলেন, আইনি দিক খতিয়ে দেখে এব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবার দায়িত্ব তিনি ছেড়ে দিতে চান রাজ্য নেতৃত্বের ওপর। এরপর রাজ্য নেতারা প্রায় তিন ঘন্টা বৈঠকের পর ঠিক করেন তারা আদালতে যে কথা বলেছেন, সেই অনুযায়ী ২২,২৪ এবং ২৬ তারিখেই রথ যাত্রা করবেন। সেকথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে অমিত শাহকে। তিনি আগেই জানিয়েছেন, রাজ্য কমিটি যেদিন ঠিক করবে সেই দিনই তিনি রথের উদ্বোধন করতে আসবেন।

বৈঠক শেষে রাজ্য নেতৃত্ব জানান, অমিত শাহকে দিনক্ষণ জানানো হয়ছে, তারা আশা করছেন তিনটি রথই অমিত শাহের হাত দিয়েই সূচনা হবে। তবে শেষ পর্যন্ত তিনি কি সিদ্ধান্ত নেন , আপাতত তার জন্য অপেক্ষা করে আছে রাজ্য বিজেপি। কিন্তু ২২ তারিখের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে দল। ধানবাদ থেকে শুক্রবারই রওনা হবে রথ, তারপিঠের উদ্যেশে। ওই দিন রাতেই রথ পৌঁছাবে রামপুরহাটের রেল ময়দানে। শনিবার তারাপীঠে পুজো দিয়ে শুরু হবে রথ যাত্রা অনুব্রতর দুর্গ থেকেই।

1772Shares