মায়া-অখিলেশকে বার্তা দিয়ে বড় সিদ্ধান্ত রাহুলের।লাভবান বিজেপি

0
1

সবসংবাদ,নতুন দিল্লি: আগামী লোকসভা নির্বাচনে উত্তর প্রদেশে কংগ্রেস একা লড়াই করতে পারে। একটি সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া একটি সাক্ষাত্কারে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী এই সংকেত দিয়েছেন। তিনি বলেন – কংগ্রেসের জন্য উত্তরপ্রদেশে অনেক আকর্ষণীয় বিষয় রয়েছে। এবারের নির্বাচনে উত্তরপ্রদেশে জয়ের দারুন সম্ভাবনা রয়েছে । এ অবস্থায় আমাদের উত্তরপ্রদেশের মানুষের প্রতি পূর্ণ আস্থা রয়েছে এবং আমরা অহমি লোকসভা নির্বাচনে জনগণকে অবাক করে দেব।

রাহুল গান্ধী ২০১৭ সালের উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনে সমাজবাদী পার্টির সাথে জোট করে নির্বাচন লড়েছিলেন, সেখানে বিজেপির কাছে পরাজিত হওয়ার পর দীর্ঘদিন ধরে বহুজন সমাজবাদী পার্টিকে এই জোটে শামিল করে বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াই করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। উত্তরপ্রদেশের লোকসভার তিন আসনে উপনির্বাচনে এই ফর্মুলাকে কাজে লাগিয়ে বিজেপিকে পরাস্ত করতে সক্ষম হয়েছে।

আরও পড়ুন: মহাজোটকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে তামিলনাড়ুতে জোট চূড়ান্ত

রাহুলের এই বক্তব্য এমন সময় এসেছে যখন এসপি-বিএসপি দেশের বৃহত্তম রাজ্যে কংগ্রেসকে ব্যাড দিয়ে একসঙ্গে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে । এ কথা সত্য যে, সমাজবাদী পার্টির সভাপতি আখিলেশ যাদব ও বহুজন সমাজবাদী পার্টির সুপ্রিমো মায়াবতী কংগ্রেসের সঙ্গে নির্বাচনের পক্ষে নয়। তবে, কংগ্রেসের জন্য কেবল রাই বরেলি ও আমেঠি এই দুটি আসন উভয় দল ছেড়ে যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে, যেখানে বর্তমানে সোনিয়া গান্ধী ও রাহুল গান্ধী সংসদ রয়েছেন।

২০১৭ সালের উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেস ৬.২২ শাতাং ভোট পায়। যা ২০১২ সালের বিধানসভা নির্বাচনের থেকে ৫.৪৪ শতাংশ কম। সমাজবাদী পার্টির সাথে জোটে মোট ১০৫ টি আসনে কংগ্রেস নিজের প্রতীকে প্রতিদন্ধিতা করে মাত্র ৭ টি আসনে জিতেছিল। এবার কংগ্রেস এক উত্তরপ্রদেশে নির্বাচন লড়ে কিভাবে দেশবাসীকে চমকে দেবেন সেটি লক্ষ্য করার বিষয়।

রাজস্থান মধ্যপ্রদেশ ও ছত্তিশগড়ে একা লড়াই করে ভালো ফল পেয়েছে কংগ্রেস। পরে অবশ্য রাজস্থান ও মধ্যপ্রদেশে সরকার গড়তে সমাজবাদী ও বহুজন সমাজবাদী পার্টির বিধায়কদের সাথে নিতে হয়েছে।

বিজেপিকেই সুবিধা করে দেবে মনে করছে রাজনৈতিক মহল

তবে আগামী লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস এক লড়ে বিজেপিকেই সুবিধা করে দেবে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। উত্তরপ্রদেশে সমাজবাদী পার্টি ও বহুজন সমাজবাদী পার্টির মিলিত ভোট ৪৪.৬৩ শতাংশ এবং বিজেপি জোটের ভোট ৪৪.৩৭ শতাংশ। যেখানে অবশ্য এখন বিজেপির সরকার চলছে। সামান্য ভোট শতাংশের তফাৎ আগামী লোকসভা নির্বাচনের আগে বিজেপি শুধরে নিতে পারে। কংগ্রেস একা লড়াই করে সমাজবাদী পার্টি ও বহুজন সমাজবাদী পার্টির জোটের ভোট কাটতে পারে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞরা।

995Shares