বিজেপি যেতেই যেতে হল দীনদয়ালকে।এ নীতি কংগ্রেসের নতুন নয়

সব সংবাদ : গত ডিসেম্বরে বদল হয়েছে রাজস্থানের সরকার। কংগ্রেসের এই সরকার গতকাল ভারতীয় জনতা সংঘের সহ-প্রতিষ্ঠাতা এবং ভারতীয় জনতা পার্টির অগ্রদূত দীন দয়াল উপাধ্যায়ের ছবি সকল সরকারী দলিলপত্র ও চিঠি প্যাড থেকে অপসারণের আদেশ দেয়। ANI-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, রাজস্থান মন্ত্রিসভা রাষ্ট্রের সকল বিভাগকে এই নির্দেশ দিয়েছে। বসুন্ধরা রাজ্যের পূর্বতন মন্ত্রিসভা দীন দয়াল উপাধ্যায় এবং রাজ্য সরকারের চতুর্থ বার্ষিকী উপলক্ষে একটি নোটিশ প্রদান করে। নতুন রাজস্থান সরকারের উপ-মুখ্যমন্ত্রী শচীন পাইলট বলেন, পূর্বতন বিজেপি সরকার কর্তৃক জারি করা নোটিশ নিয়ম বিরুদ্ধ। সচিন পাইলট আরও বলেন যে, যে ব্যক্তি কোন সাংবিধানিক পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন না তার ছবি কোনো সরকারি দলিল ও চিঠি প্যাডে থাকতে পারে না। কংগ্রেস সরকার ক্ষমতায় আসার পর প্রথম মন্ত্রিসভার বৈঠক হয়েছে দিন চারেকের আগেই। বৈঠকের পরপরই এমনটাই ঘোষণা করেছে অশোক গেহলোটের সরকার। সরকারি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, সমস্ত সরকারি নথি থেকে দীনদয়াল উপাধ্যায়ের ছবি সরিয়ে জাতীয় প্রতীক ব্যবহার করতে হবে।

আরও পড়ুন : ভয় পেয়েছে কেজরিওয়াল? আগামী বিধানসভায় একা সাহস নেই।

বিপুল ভোটে জয়ী হয়ে সপ্তাহ দুয়েক আগেই রাজস্থানে ক্ষমতায় এসেছে কংগ্রেস। দীর্ঘ জল্পনার পর মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন কংগ্রেস নেতা অশোক গেহলোট ও উপমুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব নিয়েছেন শচিন পাইলট। প্রসঙ্গত, ২০১৭-র ডিসেম্বরে তৎকালীন বিজেপি সরকারের ক্ষমতাকালে এক বিজ্ঞপ্তি অনুসারে রাজস্থানের সমস্ত অতিরিক্ত মুখ্যসচিব, সচিব এবং কমিশনারদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল, দফতরে দীনদয়াল উপাধ্যায়ের ছবি রাখা বাধ্যতামূলক। ক্ষমতার রদবদলে সরকারি নীতি বদলানোর ঘটনা এদেশে নতুন নয়। সম্প্রতি এমন ঘটনা ঘটেছে মধ্যপ্রদেশেও।