কর্নাটকে বহিষ্কার কংগ্রেস বিধায়ক, সংকটে সরকার ও দল

কর্নাটকে

সব সংবাদ : ফের মুশকিলে কর্নাটক কংগ্রেস। কংগ্রেস-জেডিএস সরকারের ভবিষ্যৎ ফের সংকটে। তবে এবার দোষমুক্ত হতে পারে বিজেপি। গত কিছুদিন ধরে বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে যে বিজেপি নাকি কংগ্রেস বিধায়কদের প্রলোভন দেখিয়ে ভাঙানোর চেষ্টা করছে। কর্ণাটকের জোট সরকারকে ফেলে দিতে চাইছে বিজেপি। কিন্তু এবারের মুশকিলটা অন্যরকম পরিস্থিতিতে। কংগ্রেস তার বিধায়কদের নিয়ে বিজেপির দল ভাঙানোর ভয়ে এক রিসোর্টে রেখেছিলো। সেখানে গত কাল দুই কংগ্রেস বিধায়ক জে.এন.গনেশ এবং আনন্দ শিংয়ের মধ্যে মারামারি হয়। জে.এন.গনেশ, আনন্দ সিংয়ের মাথায় বোতল দিয়ে মারে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আনন্দ শিং, কংগ্রেস বিধায়ক জে.এন.গনেশের নামে থানায় FIR করে এবং পার্টিকে এই বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান। আজ পার্টি বিষয়টি তদন্ত করে জে.এন.গণেশকে কংগ্রেস দল থেকে বহিস্কার করে।

গত কাল সংবাদ মাধ্যমে এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই কংগ্রেসের পক্ষ থেকে জানানো হয় যে, রিসোর্টে কোনো মারামারি হয় নি। আনন্দ সিং বুকের যন্ত্রনা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। আজ গণেশকে বহিস্কার করতেই কংগ্রেসের এই দাবি মিথ্যা প্রমান হয়ে গেলো। কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা ইয়েদুরাপ্পা জানান যে বিজেপি কখনই কংগ্রেসকে ভাঙানোর চেষ্টা করে নি। কংগ্রেসের কিছু বিধায়ক দলের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করে আমাদের সাথে যোগাযোগ রাখছিলো।

এই মুহূর্তে কর্ণাটকের স্থিতি
বিজেপি > ১০৪ – ৩৯ শতাংশ
কংগ্রেস > ৮০ – ৩৬.২ শতাংশ
জে ডি (এস) > ৩৭ – ১৮.৩ শতাংশ
অন্যান্য > ৩ ৬.৫ শতাংশ
মোট আসন > ২২৪ সংখ্যাগরিষ্ঠতা > ১১৩

800Shares