আবার পতন কংগ্রেস পক্ষে, জাত-পাতের অভিযোগ তুলে পদত্যাগ বিধায়কের

সব সংবাদ : আবার প্রশ্নের মুখে রাহুল গান্ধী সহ গোটা কংগ্রেস দল। এবার কারণ হিসেবে জাত-পাতের রাজনীতিকে দায়ী করে শনিবার বিধানসভা এবং পার্টির সদস্যতা পদ থেকে ইস্তফা দিলেন গুজরাট কংগ্রেসের বিধায়ক আশা প্যাটেল। ওইদিন গান্ধীনগরে গুজরাট বিধানসভা সভাপতি রাজেন্দ্র ত্রিবেদীর কাছে নিজের ইস্তফা পত্র দেন কংগ্রেসের এই বিধায়ক। আশা প্যাটেলের ইস্তফার পর বড়সড় ঝটকা খেতে চলেছে গুজরাট কংগ্রেস। ২০১৭-র বিধানসভা নির্বাচনে এই বিধায়ক গুজরাটের উনঝা আসনে বিজেপির হাত থেকে জয় ছিনিয়ে কংগ্রেসকে ওনার আসনটি উপহার স্বরুপ দিয়েছিলেন। এই আসন গুজরাটের মেহসানা লোকসভার সাতটি আসনের মধ্যে একটি।

আরও পড়ুন : Exclusive ভিডিও: মেঝেতে বসে বড়মার শরীরের খবর নিলেন মোদী

কংগ্রেসের এই বিধায়ক তাঁর দলের উপর জাত পাটের রাজনীতি করার মত গুরুতর অভিযোগ এনে দল ছাড়েন। উনি জানান, প্রধানমন্ত্রী গোটা দেশে আর্থিকভাবে পিছিয়ে পরা মানুষদের জন্য ১০ শতাংশ সংরক্ষণ চালু করেছেন। আর এদিকে কংগ্রেস এখনো জাত-পাত নিয়ে রাজনীতি করে চলেছে। এই দলে আমার থাকা সম্ভব না, আমার এই দলে এখন দম বন্ধ হয়ে আসছে।

আরও পড়ুন : ” ভিড় দেখেই বুঝেছি কেন ভয় পাচ্ছে মমতা ” : মোদী

কংগ্রেস সুত্র থেকে জানা গেছে যে, আশা দল ছাড়ার আগে গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রুপানির সাথে সাক্ষাৎ করেছিলেন। আর তারপরেই উনি এই সিদ্ধান্ত নেন। কংগ্রেস সুত্র থেকে এটাও জানা গেছে যে কংগ্রেসের আরও ১২ জন বিধায়ক বিজেপির সাথে যোগাযোগ রাখছে। তাঁদের মধ্যে অল্পেশ ঠাকুর অন্যতম। কংগ্রেসের আশঙ্কা এখন গুজরাটে তাঁদের দল ভেঙে পড়তে পারে।

795Shares