মনোমালিন্য এড়িয়ে মহারাষ্ট্রে শিবসেনা-বিজেপি অটুট জোট

shivsena-bjp alliance

সব সংবাদ : শিবসেনা মহারাষ্ট্রে ও কেন্দ্রে বরাবরই বিজেপিকে সহযোগিতা করে এসেছে। ৪ দিন কেটে যাওয়ার পরও এই সন্ত্রাসী হামলার কোনো আশানুরূপ উত্তর না পেয়ে আজ শিবসেনার মুখপাত্র উদ্ধভ ঠাকরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্রমোদীর বিরুদ্ধে মখুর হয়ে বলেন, “কোনো রাজনৈতিক দল কোনোদিনই কাশ্মীরের সমাধান করতে পারবে না বা জওয়ানদের হত্যা বন্ধ করতে পারবে না। “

শিবসেনা মুখপাত্র আরও বলেন, ” সৈন্যদের হত্যার প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য পাকিস্তানকে আক্রমণ করার সময় এসে গেছে। পুলওয়ামার সন্ত্রাসী হামলার পর প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাস তার কর্মকাণ্ডে প্রতিফলিত হওয়া উচিত। এটা সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করে সময় নয়। “

তবে শেষমেষ ‘মনোমালিন্য’ দূরে সরিয়ে বিজেপি’রই হাত ধরল শিবসেনা। আসন্ন লোকসভা ভোটে মহারাষ্ট্রে জোটবদ্ধ ভাবে লড়ছেন উদ্ধভ ঠাকরে-দেবেন্দ্র ফড়নবিশ। সোমবার একথাই ঘোষণা করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। উনিশের ভোটের লড়াইয়ে সে রাজ্যের ৪৮টি আসনের মধ্যে ২৫টিতে লড়বে বিজেপি আর বাকি ২৩টি আসনে লড়বে শিবসেনা। আজ মুম্বইয়ে উদ্ধভ ঠাকরের বাসভবনে বৈঠক করেন অমিত শাহ, দেবেন্দ্র ফড়নবিশরা। বৈঠক শেষে বিজেপি-শিবসেনা জোটের চূড়ান্ত ঘোষণা করেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী।

প্রায় ২৫ বছর ধরে একে অপরের হাত ধরে ভোটের ময়দানে লড়েছে বিজেপি-শিবসেনা। সেই পরম্পরাই অটুট রইল। তবে, গত কয়েক বছরে নানা ইস্যুতে বিজেপিকে সরাসরি নিশানা করেছে শিবসেনা। এমনকি একসঙ্গে ভোটে না লড়ার কথাও বারবার বলেছেন উদ্ধবরা। শেষ পর্যন্ত মহারাষ্ট্রে বিজেপি-শিবসেনা জোট অটুট থাকায় লোকসভা ভোটের আগে মোদী-শাহরা অনেকটাই স্বস্তি পেলেন বলে মনে করা হচ্ছে।

জোট ঘোষণা করতে গিয়ে ফড়নবিশ বলেন, “গত ২৫ বছর ধরে বিজেপি-শিবসেনা একসঙ্গে রয়েছে। অতীতে কিছু মতপার্থক্য হয়েছিল ঠিকই। হিন্দুত্বের মতাদর্শে দুই দলই বিশ্বাসী। সেকারণেই আমরা জোটে রয়েছি।”
শিবসেনা মুখপাত্র উদ্ধভ ঠাকরে বলেন, “নতুন করে আজ থেকে পথচলা শুরু হল। হিন্দু ভোটাররা খুব উজ্জীবিত হবেন।”
প্রসঙ্গত, গতবারের লোকসভা ভোটে মহারাষ্ট্রে ৪২টি আসনে জিতেছিল বিজেপি-শিবসেনা জোট।

সব সংবাদের খবর ভালো লাগলে Like করুন ‘ সব সংবাদ ‘ Facebook Page

1800Shares