মহাজোটে ধাক্কা দিয়ে বড় ঘোষণা মায়াবতীর, চাপে কংগ্রেস

ধাক্কা

সব সংবাদ : লোকসভা নির্বাচনে দিন ঘোষণা হয়ে গেছে। বিজেপিকে আটকাতে বিরোধীদের মহাজোট আস্তে আস্তে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ছে।মোদী বিরোধী মহাজোটকে ধাক্কা দিয়ে বড় ঘোষণা করলেন বহুজন সমাজবাদী পার্টির সুপ্রিমো মায়াবতী।আগামি লোকসভা নির্বাচনে বিএসপি কংগ্রেসের সাথে কোনও জোট করবে না। বিএসপি সুপ্রিমো মায়াবতী বলেন, আবারও আমি এটা পরিষ্কার করে দিয়েছি যে, বহুজন সমাজবাদী পার্টি ও কংগ্রেসের সাথে কোনও রাজ্যে জোট হবে না। উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ ও উত্তরাখণ্ডে এসপি-বিএসপি জোটের পর, আলোচনা ছিল যে বিএসপি অন্য রাজ্যে এনডিএর বিরুদ্ধে কংগ্রেসের সাথে জোটবদ্ধ হতে পারে। বিশেষ করে মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান ও বিহারে।

মায়াবতী বলেন, “উত্তরপ্রদেশ, উত্তরাখন্ড ও মধ্যপ্রদেশে বিএসপি ও এসপি এর মধ্যে একটি জোট হয়েছে । হরিয়ানা ও পাঞ্জাবের স্থানীয় দলের সঙ্গে কথা প্রায় নিশ্চিত হয়ে গেছে। আমাদের সাথে জোট করার জন্য অনেক দল প্রস্তুত, কিন্তু নির্বাচনী লাভের জন্য আমরা এমন কোনও কাজ করবো না পার্টির জন্য ঠিক নয়।”

২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনের জন্য, বিএসপি ৩৭ এসপি ৩৮ আসনের ভাগাভাগিতে জোট হয়েছে। এসপি-বিএসপি এই জোটে, মথুরা, মুজাফ্ফরনগর ও বাঘপট তিনটি আসনে জোট সঙ্গী আরএলডি কে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।রায় বারেলি ও আমেঠিত দুই আসন প্রার্থী সোনিয়া গান্ধী ও রাহুল গান্ধীকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। কংগ্রেসের সাথে জোট না হলেও বিজেপিকে পরাজিত করতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে মায়া-অখিলেশ।

মধ্যপ্রদেশে ২৯ টি আসনের মধ্যে ৩টি আসনের মধ্যে সমাজবাদী পার্টির প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে, বিএসপি প্রার্থীরা ২৬ টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। উত্তরাখণ্ডে ৫ টি আসন, ১টি আসনে, আর ৪ টি আসন বিএসপি’র প্রার্থী নির্বাচনে লড়বে। মধ্যপ্রদেশের খাজুরহো, তিকমগড় ও বালাগাট আসনে এসপি প্রার্থীকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

# ধাক্কা # খেল মহাজোট

সব সংবাদের খবর ভালো লাগলে Like করুন ‘ সব সংবাদ ‘ Facebook Page

945Shares