মার্কিন কর্মী ভিডিও সহ দাবি করেছেন বালাকোটে দুশোর বেশি জঙ্গি নিহত

সবসংবাদ: এয়ার স্টাইকের প্রমান নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে এসেছে। বালুচিস্থানের গিলগিটে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কর্মরত এক আধিকারিক হাসান সিরিং দাবি করেছেন যে, বালাকোটে ভারতীয় বায়ুসেনার হামলায় ২০০ জনেরও বেশি আতঙ্কবাদী নিহত হয়েছে। তিনি তার টুইটের সাথে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। এতে দেখা যাচ্ছে পাক সেনা গ্রামের জনগণকে ত্রাণ সরবরাহ করছে। সিরিং বলছেন যে, এয়ার স্ট্রাইকে নিহত কিছু মানুষের মৃতদেহ বালাকোট থেকে খাইবার পাখতুনখায়াতে পাঠানো হয়েছে।

২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ভারতীয় বায়ুসেনার মিরাজ -২০০০ বিমান পাক সীমান্তে প্রবেশ করে এবং মুজফফরাবাদ, চকোটি এবং বালাকোটে আক্রমণ করে। ভারতীয় মিডিয়া রিপোর্টে দাবি করা হয় ৩০০ জনেরও বেশি আতঙ্কবাদী নিহত হয়েছে।

সিরিংয়ের পোস্ট করা ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে সাধারণ পাকিস্তানিদের মধ্যে কর্মকর্তা বসে আছেন। তিনি তাদের বোঝাচ্ছেন যে, আল্লাহর জন্য লড়াই করাকে জেহাদ বলে। এর পর, অন্য একজন ব্যক্তির কণ্ঠ ভিডিওটিতে আসে যিনি বলছেন যে, – আল্লাহর কিছু খাস ব্যক্তি এমন ভাগ্যবান হয়। তুমি জানো, গতকাল ২০০ জনের বেশি উপরে উঠে গেছে। তাদের ভাগ্য ছিল লেখা। আমাদের ভাগ্যে লেখা ছিল না। এটা আল্লাহর রহমত ও করম এর জন্য এই ভাগ্য হয়। কিছু ঘটেছে, আমাদের অবাধে জানাতে পারেন।

সিরিং এর এই ভিডিওর এখনো কোনো সত্যতা যাচাই করা হয় নি। এটা ঠিক যে, সত্যকে ঢাকতে পাকিস্তান কিছু গোপন করার চেষ্টা করছে। সিরিং বলছেন যে বালাকোট এয়ার স্ট্রাইক যেখানে হয়েছিল সেখানে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক মিডিয়াকে যেতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। পাক সেনা ক্রমাগত দাবি করছে যে, ভারতীয় বিমান হামলায় কিছু গাছ নষ্ট হয়েছে। সিরিং এই প্রশ্নও করেন কেন পাকিস্থান এতটাদিন ধরে এই এলাকাটিকে গোপন করছে?

সব সংবাদের খবর ভালো লাগলে Like করুন ‘ সব সংবাদ ‘ Facebook Page

760Shares